প্রাথমিকে শিক্ষক যা বললেন ডিজিনিয়োগ পরিক্ষা নিয়ে

প্রাথমিকে শিক্ষক যা বললেন ডিজিনিয়োগ পরিক্ষা নিয়ে

দৈনিক শিক্ষাবার্তাঃ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার আগে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষা নেওয়া সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গনশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগির মোহাম্মদ মনসুর আলম।শনিবার সাংবাদিকদের উদ্দ্যেশে তিনি বলেন পরিক্ষা নেওয়ার জন্য আমাদের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন।

তিনি আরো বলেন প্রার্থীদের প্রবেশপত্র, প্রশ্নপত্র সহ সবকিছু গুছিয়ে রাখার কাজ চলছে। সরকার থেকে সবুজ সংকেত পেতেই পরিক্ষা নেওয়া হবে। তিনি বলেন এখনো স্কুল কলেজ খোলে নাই। স্কুল কলেজ না খুললে আমরা পরিক্ষা নিতে পারবো না। কেননা আমাদের ১৪ লাখ প্রার্থীর পরিক্ষা নিতে হবে।

আরো পড়ুনঃ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষা নিয়ে যা বললেন ডিজি এইচএসসির ফল প্রকাশ বৃহস্পতিবার গনবিজ্ঞপ্তি নিয়ে যা বললেন এনটিআরসিএর নতুন চেয়ারম্যান ৪৬ বছর পর বাবার পাওনাদারকে খুজে ঋন পরিশোধ করলো ছেলেরা স্থগিত হওয়া সরকারি স্কুলে

ভর্তির লটারি ১১ জানুয়ারী এতো বিপুল প্রার্থীর পরিক্ষা নিতে গেলে আমাদের অনেকগুলো কেন্দ্র লাগবে। তাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না খুললে নিয়োগ পরিক্ষা নেওয়া সম্ভব নয়। গত ১৯ নভেম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। এতে ১৩ লাখের বেশি আবেদন জমা হয়। প্রাথমিকের ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি। সৃষ্টপদ ও শুন্যপদ মিলে ৩২ হাজার ৫৭৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। নতুন নিয়োগ

নীতিমালা অনুযায়ী এবারই প্রথম নারী প্রার্থীদের যোগ্যতাও স্নাতক। পুরুষ প্রার্থীদের যোগ্যতা আগের মতোই স্নাতক আছে। এর আগে ২০১৮ সালের সর্বশেষ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগে লিখিত পরিক্ষায় উত্তীর্ণ হন ৫৫ হাজার ২৯৫ জন এদের মধ্য হতে নিয়োগ দেওয়া হয় ১৮ হাজার ১৪৭ জনকে। এবং ২০১৪ সালের নিয়োগ বিজ্ঞপিতে লিখিত পরিক্ষায় উত্তীর্ণ হয় ২৯ হাজার ৫৫৫ জন্য নিয়োগ পান ৯ হাজার ৭৬৭ জন

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close