ও’ষুধ-ক’নডম ছাড়াই কিভাবে জ’ন্ম নি’য়ন্ত্রণ করা সম্ভব ! বিবা’হিত দ’ম্প’তিরা জেনে রাখু’ন

ও’ষুধ-ক’নডম ছাড়াই কিভাবে জ’ন্ম নি’য়ন্ত্রণ করা সম্ভব ! বিবা’হিত দ’ম্প’তিরা জেনে রাখু’ন

ও’ষুধ সে’বন, কিংবা ক’ন’ড’মসহ জ’ন্ম নি’য়ন্ত্রণের আধুনিক যেকোন প’দ্ধতি ছাড়াই সম্পূর্ণ প্রা’কৃ’তিকভাবে জ’ম্ম নি’য়ন্ত্রণ করা সম্ভব। এটি ভালভাবে জানা থাকলে এর জন্য কোন চি’কি’ৎস’কের কাছে যাওয়ারও দরকার হয় না।মে’য়ে’দের মা”সি”ক ঋ”তুচ’ক্র

(Menstrual cycle) প্রা’কৃতি’কভাবে নির্ধারিত। এতে এমন কিছু দিন আছে যা নি’রা’পদ দিবস হিসেবে ধ’রা হয়। এই দিবস গুলোতে স্বা’মী-স্ত্রীর মি’ল’নের ফলে স্ত্রীর স’ন্তান স’ম্ভবা হবে না।এই নি’রা’পদ দিনগুলো প্রকৃতিগতভাবেই নির্দিষ্ট। তাই একে

প্রাকৃতিকপরিবার প’রিক’ল্পনা পদ্ধতি বলা হয়। চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা এটাকে অনেক সময় ক্যালেন্ডার প’দ্ধতিও বলাহয়।এ পদ্ধতি কার্যকর করতে অবশ্যই জেনে নিতে হবে আপনার স্ত্রী’র ঋ’তুচ’ক্রে’র নি’রা’প’দ দিন কোনগুলো। এ জন্য সবার আগে জানা চাই তার মা’সি’ক নি’য়’মি’ত হয় কিনা, হলে তা কতদিন পরপর হয়।

এবার সবচেয়ে কম যতদিন পরপর মা’সি’ক হয় তা থেকে ১৮ দিন বাদ দিন, মা’সি’ক শুরুর ১ম দিন থেকে ওই দিনটিই হলো প্রথম অ’নি’রাপদদিন।আবার আপনার স্ত্রীর সবচেয়ে বেশি যতদিন পরপর মা’সি’ক হয় তা থেকে ১০ দিন বাদ দিন, মা’সি’ক শুরুর ১ম দিন থেকে ঐ দিনটিই হলো শেষ অ’নি’রাপদ দিন।

ধরুন, আপনার স্ত্রীর মা’সি’ক ২৮ থেকে ৩০ দিন পরপর হয়। তাহলে ২৮-১৮=১০, অর্থাৎ মা’সিকে’র শুরুর পর থেকে প্রথম ৯ দিন আপনার জন্য নিরাপদ দিবস, এই দিন গুলোতে অন্য কোনো প’দ্ধতি ছা’ড়াই স’ঙ্গ’ম করা যাবে।২১ তম দিবস থেকে আপনি আবার অ’বা’ধ স’’ঙ্গ’ম করতে পারবেন। তাতে স’’ন্তান গ’র্ভ’ধা’র’ণের সম্ভাবনা নাই। তবে এই উদাহরণে শুধু ১০ ম থেকে ২০ ম দিবস পর্যন্ত আপনি অবাধ স’ঙ্গ’ম করলে আপনার স্ত্রীর গ’র্ভধা’রণ করার সম্ভাবনা আছে।

উপরে যেভাবে বলা হয়েছে, তাতে অনেকের কাছে জ’টি’ল মনে হতে পারে। তবে হিসাবের জন্য খুব সহজ প’দ্ধ’তি হল, মা’সি’ক শুরুর পর ১ম ৭ দিন আর মা’সি’ক শুরুর আগের ৭ দিন অ’বা’ধ স’ঙ্গ’ম করা নি’রাপদ। মানে, এই সময় মি’লন করলে স’ন্তান গ’র্ভে আসার স’ম্ভা’বনা নাই।

জেনে রাখা ভালো অ’নি’য়মি’তভাবে মা’সি’ক হবার ক্ষেত্রে এ পদ্ধতি কার্যকর নয়। এছাড়া প্রাকৃতিক জ’ন্ম’নি’য়’ন্ত্রণ ৮০% নি’রা’পদ, বা এর সাফল্যের হার শতকরা ৮০ ভাগ।সাধারণত মা’সি’কের হিসেবে গ’ণ্ডো’গো’ল করে ফেলা, অ’নিরা’পদ দিবসেও মি’ল’নের সুযোগ নেয়া বা ঝুঁ’’কি নেয়া, অ’নি’য়মিত মা’সি’ক হওয়া ইত্যাদি কারণে এই পদ্ধতি ব্য’র্থ হতে পারে।

তাই সঠিক হিসেব জেনে নেবার জন্য ১ম বার চি’কিৎ’স’কের শ’র’ণাপ’ন্ন হওয়া বুদ্ধিমানের কাজ হবে। কিছু পু’রু’ষের শু’ক্রা’ণুর আয়ু বেশি হওয়ায় তারা এটায় সফল নাও হতে পারেন। সেক্ষেত্রে অ’নিরা’পদ দিবস ২ দিন বাড়িয়ে নেবার প্রয়োজন হতে পারে। অনেকে এটাকে বলে একে ঝা’মে’লাপূর্ণ মনে করেন, কিন্ত একবারএতে অ’ভ্য’স্ত হয়ে গেলে এটা বেশ সহজ, আ’রাম’দায়ক এবং পা’র্শ্বপ্র’তিক্রি’য়াহী’ন।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close