মুনিয়ার পরিবারকে আ’ইনি সহায়তার ঘো’ষণা ব্যারিস্টার সুমনের

মুনিয়ার পরিবারকে আ’ইনি সহায়তার ঘো’ষণা ব্যারিস্টার সুমনের

গুল’শানের একটি ফ্ল্যা’ট থেকে কলেজ ছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়ার লা’শ উ’দ্ধা’রের ঘট’নায় তার পরিবারকে বিনা’মূল্যে আইনি সহায়তা দেওয়ার ঘো’ষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ যুব’লীগের কে’ন্দ্রীয় কমি’টির আইন বিষ’য়ক সম্পা’দক ও আন্ত’র্জা’তিক অপ’রাধ ট্রা’ইব্যুনা’লের সাবেক প্রসি’কিউটর ব্যা’রিস্টার সৈয়দ সা’য়েদুল হক সুমন। বুধ’বার (২৮ এপ্রিল) ব্যারি’স্টার সুমন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘মুনিয়ার বাবা-মা কেউ পৃথিবীতে নেই। এই এতিম মেয়ের জন্য আমি সি’দ্ধা’ন্ত নিয়েছি, যদি ভালো আইনজীবী না পান তাহলে আমি মুনি’য়ার পক্ষে দাঁড়াতে চাই। তার পরিবা’রকে আমি আইনি সহা’য়তা দিতে চাই।’প্রধান’মন্ত্রীর প্রতি প্রত্যা’শা ব্যক্ত করে ব্যা’রিস্টার সুমন বলেন, ‘আমি আ’মার নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে একটাই আবেদন রা’খবো, নেত্রী আপনি তো শক্তি’শালী যু’দ্ধা’পরা’ধী’দেরও ৩০/৩৫ বছর পরে হলেও বিচারের মুখো’মুখি করেছেন।

তাই আমার বি’শ্বাস জনগণের যে প্রত্যা’শা আ’পনার ওপর, বসুন্ধরা হোক বা যে শিল্প প্রত’ষ্ঠানই হোক না কেন, তাদের যে কোনও ধর’নের অ’পরা’ধ আপনি যত’দিন নেতা হিসেবে থাকবেন নি’শ্চই তাদের বিচার এই মাটি’তে হবে। সুষ্ঠ বিচার হবে এবং জনগ’ণের সামনে এটা প্রমা’ণিত হবে যে আপনি কো’নোকি’ছু’তেই পিছপা হননি। সে যেই হোক না কেন।’
একইসঙ্গে ওই ‍মৃ’ত্যু’র ঘ’টনায় দল-মত নির্বি’শেষে এই মু’ক্তি’যো’দ্ধার সন্তা’নের পাশে দাঁড়া’নোর আ’হ্বান জানান তিনি।

এছাড়া, বিভিন্ন মি’ডিয়া’য় মুনি’য়া ভিক’টিম হওয়া স’ত্ত্বেও তার ছবি প্র’কাশ করা হলেও আ’সা’মির ছবি প্রকাশ না করায় নি’ন্দা জা’নান সুপ্রিম কোর্টের এই আই’ন’জীবী।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ এপ্রিল স’ন্ধ্যায় গুল’শা’নের ১২০ নম্বর সড়’কের ১৯ নম্ব’র বাসার একটি ফ্ল্যা’টে থেকে মুনিয়ার লা’শ উ’দ্ধা’র করে পু’লি’শ। এ ঘটনায় মুনি’য়ার বড় বোন নু’সরাত জাহান তানিয়া বাদী হয়ে বসু’ন্ধরা গ্রু’পের এমডি সায়েম সোবহান আন’ভীরের বি’রু’দ্ধে আ’ত্মহ’ত্যায় প্র’রোচ’ণার অ’ভি’যোগ এনে একটি মা’ম’লা দায়ের করেছেন।

মামলার অভি’যোগে বলা হয়েছে, সায়েম সোবহানের সঙ্গে প্রে’মের সম্পর্ক ছিল মুনি’য়ার। মাসে এক লাখ টাকা ভাড়ার ওই ফ্ল্যা’টে মুনি’য়াকে রেখেছিল সায়েম সো’বহান। সে নি’য়মিত ওই বাসায় যাতা’য়াত করতো। তারা স্বা’মী-স্ত্রীর মতো করে থা’কতো। মুনিয়ার বোন অভি’যোগ করেছেন, তার বোনকে বিয়ের কথা বলে ওই ‘ফ্ল্যাটে রেখেছিল আনভীর।

একটি ছবি ফেসবুকে দেওয়াকে কেন্দ্র করে সায়েম সোবহান তার বোনের ওপর ক্ষিপ্ত হয়। তাদের মনে হচ্ছে, মুনি’য়া আ’ত্মহ’ত্যা করেনি। তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। এর বিচার চান তারা। সূএঃবাংলা ট্রিবিউন

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close