রোজা’দারদের কা’ছ থে’কে ভা’ড়া নেন না এই হি’ন্দু অটো’চালক! কি’ন্তু কেন ?

রোজা’দারদের কা’ছ থে’কে ভা’ড়া নেন না এই হি’ন্দু অটো’চালক! কি’ন্তু কেন ?

রোজাদারদের কাছ থেকে ভাড়া নেন না এই হি’ন্দু অটোচালক! কিন্তু কেন ?উত্তর প্রদে’শের বাসি’ন্দা তিনি। ৩৪ বছর বয়সী এই অটোচা’লকের নাম প্র’হ্লাদ। রোজ’গার তার সামান্য হলেও এক অসামা’ন্য নজির রাখছেন চলতি রম’জান মাসে। চলতি রম’জান মাসের শুরুতে মুস’লিমদের জন্য কিছু একটা করবেন বলে মন’স্থির করেন তিনি। দিল্লী’সহ ভার’তের প্রায় সব অঞ্চলে র’জানে প্রচণ্ড গর’ম পড়েছে। তিনি সি’দ্ধান্ত নিলেন, রোজা’দারদের বিনা ভাড়া’য় গন্ত’ব্যে পৌঁছে দেবেন। প্রথম রো’জা

থেকেই এই সেবা শুরু করেন তিনি। নিজের অটোর সামনে একটি স্টিকারও লাগিয়েছেন, যেখানে লেখা শুধু রো’জাদার ব্যক্তিদের জন্য ফ্রি অটো সা’র্ভিস। প্রহ্লাদ জানিয়েছেন, ভা’ড়ার ট্রিপের পাশাপাশি দিনে ৮ থেকে ১০টি ফ্রি ট্রিপ দিচ্ছেন রোজা’দারদের জন্য। এতে অবশ্য তার কিছুটা ক্ষ’তি হচ্ছে।

কিন্তু এরপরও তিনি খুশি। তিনি বলছেন, দিনের বেলার এই কড়া রোদে রোজা’দারদের একটু হলেও উপকা’রে আসতে পেরে আমি খুশি। এর মাধ্যমে তাদের দোয়া পাবো, এটাই যথেষ্ট। তিনি জানান, আসলে সবার ধর্ম’ই এক। ঈ’শ্বর তো একজন। লোকে শুধু আমাদের মধ্যে পার্থক্য খুঁজে বের করে।

এই মানসিক’তা বদলাতে হবে। আরো সংবাদ তুর’স্ক তাদের প্রেসি’ডেন্ট রিসে’প তাইয়েপ এরদোগানকে ‘স্বৈরশা’সক’ বলায় ইতা’লির প্রধান’মন্ত্রী মারিও দ্রাঘিকে ক্ষ’মা চাইতে বলেছে। আধুনিক তুরস্কের সবচেয়ে শ’ক্তি’শা’লী নেতা এরদোগানকে সমর্থকরা দেশটির র’ক্ষা’কর্তা হিসাবে দেখে থাকেন। খবর আরব নিউজের। ইতা’লির প্রধানম’ন্ত্রী মা’রিও দ্রাঘি সম্প্রতি তাকে ‘স্বৈরশাসক’ হিসাবে আখ্যা দিয়েছেন।

গত বুধবার ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উর’সুলা ভন ডার লিয়েনকে তুর’স্কে অব’মাননা করার অ’ভিযোগ এনে তার বিরু’দ্ধে এ মন্ত’ব্য করেন তিনি। লিয়েন ও ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মিশেল এক সপ্তাহ আগে তুর’স্কের প্রেসিডে’ন্টের সঙ্গে দেখা কর’তে গিয়েছিলেন। সেখানে ছিল মাত্র দুটি চেয়ার। একটিতে বসলেন এরদো’গান এবং অন্যটিতে মিশে’ল।

ভন ডা’র লিয়েনকে যথারীতি দাঁ’ড়িয়ে থাকতে হয়েছিল। তুরস্কে’র সরকারি ছবিগুলোতে অবশ্য তাকে একটি সোফায় বসে থাকতে দেখা গিয়েছিল। ইতা’লির প্রেসি’ডেন্ট মারিও দ্রাঘি বুধবার বলেন,‘ভন ডার লিয়েনকে যে ভীষণ অব’মান’না করা হয়েছে, তাতে আমি খুবই অসন্তু’ষ্ট, ক্ষু’ব্ধ।’ তিনি আরও বলেন, ‘আসুন ওদের বুঝি’য়ে দিতে ‘বলি, ওরা আসলে কী?

এই স্বৈরশা’সকদের বুঝিয়ে দিতে হবে, বিশ্বস’মাজে চলতে গেলে আরও সততাঅর্জন করতে হবে।’ এদিকে ই’তালি প্রধা’নমন্ত্রীর এ মন্তব্যের প্রতিবাদে তুর্কি পররা’ষ্ট্র মন্ত্রণালয় এটিকে ‘অপ্রয়োজনীয় ওকুরুচি’পূর্ণ’ বলে আখ্যা দিয়েছে।

তুর’স্ক এক বিবৃতিতে বলেছে, দ্রাঘির এই ম’ন্তব্য তুরস্ক ও ইতালির জোটচেতনাকে প্রশ্ন’বিদ্ধ করেছে। তার এ মন্তব্য প্রত্যাহার করে ক্ষ’মা চাইতে বলা হয়েছে। সরকারিভাবে প্রতিবাদের পাশাপাশি তুর্কিপররা’ষ্ট্রমন্ত্রী কাভুসোগলু একটি টুইট’বার্তায় এ মন্তব্যের তীব্র সমালো’চনাও করেন।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
error: Content is protected !!
Close
Close