শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে খান এই পানীয়টি

শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে খান এই পানীয়টি

সাধারণত রান্নায় সুগন্ধি আনতে তেজ পাতার ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তবে তেজপাতার আরও বিশেষ কিছু ব্যবহার আছে যা অনেকেরই অজানা। তেজপাতা মানসিক উদ্বেগ ও রক্তচাপ কমাতে উপকারী। তেজপাতার মধ্যে থাকা মাইগ্রেন ও ইউজেনল প্রদাহরোধী হিসেবে কাজ করে।

এছাড়া তেজপাতার পানি ও শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূরীকরণে বিশেষ ভূমিকা রাখে। আসুন জেনে নেই কিভাবে তৈরি করবেন এই তেজপাতার পানীয়টি তেজপাতার পানীয় তৈরি করার জন্য প্রথমে একটি পাত্রে দুই কাপ পানি নিয়ে সেটিকে তিন থেকে পাঁচ মিনিট গরম করুন। গরম হয়ে গেলে পাত্রটি ওভেন থেকে নামিয়ে এরমধ্যে তিন থেকে চারটি তেজপাতা পাঁচ থেকে সাত মিনিটের জন্য ভিজিয়ে রেখে দিন।

৫-৭ মিনিট পর তেজপাতা গুলি পানি থেকে সরিয়ে নিয়ে তার মধ্যে সামান্য পরিমাণ মধু মিশিয়ে নিলেই তৈরি তেজপাতার পানীয়।সকালে খালি পেটে এই পানীয় পান করতে পারেন। এটি শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূরীকরণে কার্যকর। এছাড়া মানসিক চাপ ও উদ্বেগ কমাতে তেজপাতা পোড়ানোর বিষয়টি বহু পুরনো প্রচলিত।

তেজপাতার মধ্যে রয়েছে পাইনেন, চাইনেওল ও লাইনেলল যা মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে। তেজপাতা পুড়িয়ে তার গন্ধ গ্রহণে মানসিক চাপ কমে। এটি মস্তিষ্ককে শান্ত ও উদ্বেগহীন রাখে।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close