আমি যা করি তাই ভাইরাল হয় : ভাবনা

আমি যা করি তাই ভাইরাল হয় : ভাবনা

ছোটপর্দার জনপ্রিয় অ’ভিনেত্রী আশনা হাবীব ভাবনা। বিভিন্ন সময় নানা বি’ষয়ে আলোচনা-সমালোচনায় থাকেন তিনি। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তাকে নিয়ে বেশ চর্চা হয়।আপনাকে নিয়েই কেন এত চর্চা?

উত্তরে এ অ’ভিনেত্রী বলেন, নিজেও এর উত্তর জানি না। আমি যা করি তাই ভাইরালহয়। কিছু দিন আগে কেন স্লিভলেস ব্লাউজ পরেছি এটা নিয়ে সবাই বলেছেন। যদি বোরকা পরি সেটা নিয়েও বলতেছাড়বে না। ফেসবুকে কোনো ছবি পোস্ট করলে সেটা নিয়েও অনেকে সমালোচনা করেন।

ভালো কাজ করলেও সেটার সমালোচনা করেন কেউ কেউ।এদিকে ঈদের একটি টেলিছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন অ’ভিনেত্রী। আগামীকাল মাসুদ সেজানের‘প্রেমিকা আবশ্যক’ শিরোনামের এ টেলিছবির শুটিং শেষ করবেন তিনি।

এরপর ঈদের আগে আর কোনো শুটিং করবেন না বলে জানান।এর আগে ঈদের জন্য অনিমেষ আইচের ‘আলিবাবা চালিচার’ শিরোনামের একটি ওয়েব ফিল্মের কাজ শেষ করেছেনতিনি। করোনা ও লকডাউনের এই সময়ে শুটিং অনেকটা ঝুঁকিপূর্ন। কোন বি’ষয়টি ভেবে এই সময়ে ভাবনা শুটিং করছেন?তার ভাষ্য,

আমি প্রতিদিন শুটিং করিনি। মাত্র দুটি কাজ করেছি। চে’ষ্টা করেছি সব মেনে শুটিং করতে। যে দুটি কাজকরেছি দুটির টিম সব ধরনের সুরক্ষা বজায় রেখে কাজ করেছেন। ঈদের সময় কম-বেশি সবার কেনাকা’টার আগ্রহ থাকে। কিন্তু করোনায় এবার পরিস্থিতি প্রতিকূলে। ঈদ শপিং নিয়ে ভাবনার ভাবনা কি?তিনি বলেন,

আমি ক্লাস এইটের পর থেকে ঈদের শপিং করি না। ছোটবেলা থেকে কাজ শুরু করেছি। তাই সব ঈদেব্যস্ত থাকতে হয়। এই সময়ে আমা’র জন্য বাবা-মা কিনে থাকেন। এখন যোগ হয়েছে আমা’র বোন। সে ডিজাইনার। ঈদে তার ডিজাইন করা পোশাক পরবো।

করোনা মহামা’রিতে বিভিন্ন দেশের তারকা শিল্পীরা বিভিন্নভাবে মানুষকে সহযোগীতা করছেন। আমা’দের দেশের তারকদের সেভাবে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি। এ নিয়ে আপনার মন্তব্য কি?উত্তরে তিনি বলেন, অন্যদের কথা বলতে পারবো না।

হয়তো অনেকে সহযোগীতা করছেন, সেটি প্রকাশ হচ্ছে না। তবেআমা’র কোনো বি’ষয় লুকানো নেই। গেল লকডাউনে আমা’রা বাসা ভাড়া মওকুফ করেছি। আরো বিভিন্নভাবে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চে’ষ্টা করছি।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close