গরমে শরীরের পানিশূন্যতা দূর করতে বেশ ভূমিকা রাখে তালের শাস

গরমে শরীরের পানিশূন্যতা দূর করতে বেশ ভূমিকা রাখে তালের শাস

ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী উপজেলা বিভিন্ন হাটবাজারে সুস্বাদু তালের শাস বিক্রির করতে দেখা গেছে । বিভিন্ন বয়সের মানুষের কাছেই তালের শাস বেশ জনপ্রিয়। সুস্বাদু এই তালের শাসে রয়েছে বিভিন্ন রকমের ওষুধি গুণও। যার ফলে সব শ্রেনী পেশার মানুষদের দেখা যায় সুস্বাদু এই তালের শাস খেতে। মৌসুমি বিভিন্ন ফলের সাথে তালের শাসের চাহিদা ও কদর বেড়েছে গ্রামের মানুষের মাঝে।

সোমবার বোয়ালমারী উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার গিয়ে দেখা যায়, রাস্তাঘাট, ফুটপাতসহ বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে দেখা গেছে সুস্বাদু এই ফলটি।বিক্রেতারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাল কেটে তালের শাঁস বের করছে আর ক্রেতারাও অনেক আগ্রহ নিয়ে এই ফলের শ্বাস কিনছেন। বোয়ালমারী উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় ভ্যানে করে তালের শাস বিক্রি হতে দেখা যায়। বোয়ালমারীর তালতলা, ময়েনদিয়া বাজার, ময়না হাটে, সাতৈর বাাজারে বিক্রি করা হয়।

সাতৈর বাজারে থেকে তাল ক্রয়ের সময় কলেজ ছাত্র সুুুমন কাজী বলেন, তাল যখন কাঁচা থাকে, তখনও খাওয়া যায়, তখন বাজারে এটি তালের শাস হিসেবেই বিক্রি হয়। কেউ বলে তালের শাস আবার কেউ বলে তালের চোখ বলে।

ময়না হাটে তাল বিক্রেতা কুদ্দুস সেক জানান, প্রতিটি তালের ভেতরে ৩ থেকে ৪ টি শ্বাস থাকে প্রতিটি তাল গড়ে ৫ টাকা থেকে ১০ টাকা বেচাকেনা হয়।এলাকায় ভেদে প্রতিটি তালের দাম ৫ থেকে ১৫ টাকা হয়ে থাকে। গরম পড়লে তালের শাস অনেক ভালো বিক্রি হয়। তবে এবার করোনা ও পবিত্র রমজান মাসে বেচা কেনা কম। তবে প্রতি বছর আমি এই মৌসুমে তালের শাস বিক্রি করে থাকি।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close