মুরগীর কলিজা খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারি না ক্ষ’তিকর? জে’নে নিন

মুরগীর কলিজা খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারি না ক্ষ’তিকর? জে’নে নিন

খাসি বা গরুর মাংসের মে’টে বা লি’ভার (য’কৃৎ) আমাদের শ’রীরের জন্য খুবই উপকারি। কিন্তু মুরগির মাংসের লি’ভারও কি ততটাই উপকারি? এ নিয়ে আমাদের অনেকেরই ধ’ন্দ র’য়েছে।

আসুন মুরগির মাংসের মে’টে বা লি’ভার খাওয়ার উপকারিতা সম্প’র্কে জে’নে নেওয়া যাক। পু’ষ্টিবিদদের মতে, মুরগির মাংসের তুলনায় মুরগির লি’ভারের পু’ষ্টিগুণ কোনও অংশে ক’ম নয়। মুরগির লি’ভারে র’য়েছে নানা রকম ভিটামিন, আয়রন, ক্যালশিয়াম, ফাইবার ছা’ড়াও আরও অনেক উ’পকারি উপাদান।

মুরগির লি’ভারে থাকা ভিটামিন-এ এবং বি আমাদের দৃ’ষ্টিশ’ক্তি ও ম’স্তিষ্কের বিকাশে সহায়ক। ডায়বেটিসের মতো অসুখে আ’ক্রান্তদের জন্য খুবই উপকারী। এ ছা’ড়াও, লি’ভারে থাকা ফাইবার ও আয়রন আছে তা শ’রীর ও হা’র্টের প’ক্ষে খুব উপকারী।

মুরগির লি’ভারে র’য়েছে সেলেনিয়াম নামের আরও একটি জ’রুরি উপাদান যা ক্লো’ন ক্যা’নসারের ঝুঁ’কি ক’মাতে সহায়ক। এ ছা’ড়াও সেলেনিয়াম শ্বা’সকষ্ট, হাঁ’পানি, ছোট-বড় সংক্র’মণ, শ’রীরের গাঁ’টে গাঁ’টে ব্য’থা, কৃমির সম’স্যাকে নি’য়ন্ত্রণে আনতে সাহা’য্য করে।

বিশ্বের তাবড় পু’ষ্টিবিদদের মতে, মুরগির লি’ভারে র’য়েছে দ’স্তা বা জি’ঙ্ক যা জ্বর, টনসিলাইটিস, সর্দি-কাশি সৃ’ষ্টিকারী জী’বাণুর বি’রুদ্ধে শ’রীরে প্র’তিরো’ধ ক্ষ’মতা গড়ে তুলতে সা’হায্য করে। এ ছা’ড়াও, মুরগির লি’ভারে থাকা কোলাজেন ওইলাস্টিন আমাদের শ’রীরের শি’রা- উ’পশিরায় র’ক্ত প্র’বাহ সহজ ও স্বা’ভাবিক রা’খতে স’হায়তা করে। শ’রীরের বিভিন্ন অ’পুষ্টিজনিত সম’স্যা দূ’র ক’রতে, দ্রুত ওজন বাড়াতে মুরগির লি’ভারের জু’ড়ি মেলা ভার।

তবে যাঁদের উ’চ্চ র’ক্তচা’প বা হা’র্টের সম’স্যা র’য়েছে, তাঁদের মুরগির লি’ভার বা মে’টে না খাওয়াই ভাল। কারণ, এতে শ’রীরে কো’লেস্টেরলের পরিমাণ বে’ড়ে যেতে পারে। তাই আপনার যদি হা’র্টের সম’স্যা, উচ্চ র’ক্তচা’পের সম’স্যা বা উচ্চ কো’লেস্টেরলের সম’স্যা না থাকে, তাহলে এখন থেকে আপনার খাদ্যতালিকায় জু’ড়ে নিন এই মুরগির লি’ভার বা মে’টে।

খেতেও ভাল, উপকারীও ব’টে! এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে সংসদে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী উপযুক্ত পরিবেশ হলেই এইচএসসি পরীক্ষা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেছেন, এ পরীক্ষা গ্রহণের সমস্ত প্রস্তুতি সরকারের রয়েছে। আজ মঙ্গলবার (২৩ জুন) জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত ২০২০-২১ অর্থ বছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, করোনা সংকটকালে অনলাইন ও টেলিভিশনে পাঠদান চলছে। টেলিভিশনের মাধ্যমে শতকরা প্রায় ৯২ শতাংশ শিক্ষার্থীর কাছে আমরা পৌঁছতে সক্ষম হয়েছি। অনলাইনে পাঠদানে আজ নতুন একটি প্লাটফর্ম চালু করা হবে। সব বিশ্ববিদ্যালয় এটি ব্যবহার করতে পারবে। শিক্ষার্থী ও অভিভাববদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এরকম সময়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা থাকলেও সবাই এই সময়টাকে যেন কাজে লাগাই।

পাবিবারিক বন্ধনকে আরও সুদৃঢ় করি। নতুন দক্ষতা অর্জন করার চেষ্টা করি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবার প্রতি মানবিক আচরণ করি। শিক্ষামন্ত্রী তার বক্তব্যে অনলাইন শিক্ষা সহজলভ্য করতে মোবাইল ও ইন্টারনেটের ওপর প্রস্তাবিত শুল্ক প্রত্যাহারের প্রস্তাব করেন।

এছাড়া কালো টাকাকে সাদা করার সুযোগকে অনৈতিক উল্লেখ করে এটি অর্থনৈতিকভাবে তেমন ফলদায়ক নয় বলে মন্তব্য করেন শিক্ষামন্ত্রী। এই সুযোগ রাজনৈতিকভাবে জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি করে না উল্লেখ করে এটি দেয়ার কোনো যৌক্তিকরা আছে বলে তিনি মনে করেন না বলে জানান।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close