ইন্দোনেশিয়া থেকে মুক্ত হলো ইরানি তেলবাহী সেই জাহাজ!

ইন্দোনেশিয়া থেকে মুক্ত হলো ইরানি তেলবাহী সেই জাহাজ!

ইন্দোনেশিয়ার পানিসীমায় ১২৫ দিন আটক থাকার পর মুক্ত হয়েছে ইরানি তেলবাহী জাহাজ ‘হর্স’।গত ২৪ জানুয়ারি ইন্দোনেশিয়া ইরানের এই জাহাজকে আটক করেছিল।ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের

সহযোগিতায় সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে জাহাজটিকে মুক্ত করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে ইরানের বিভিন্ন পর্যায়ের পদস্থ কর্মকর্তা সার্বিক সমর্থন ও সহযোগিতা দিয়েছে।মুক্ত হওয়ার পর ট্যাংকারটি পূর্ব নির্ধারিত গন্তব্যের দিকে রওনা হয়েছে।

পূর্ব নির্ধারিত গন্তব্যে পৌঁছার পর ইরানের দিকে রওনা হবে।ইন্দোনেশিয়ায় ১২৫ দিন আটক থাকার সময় জাহাজের ক্রুরা নানা সমস্যা সত্ত্বেও দৃঢ়তা প্রদর্শন করেছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। জাতীয় স্বার্থে তেল রপ্তানি অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে তাদের এই দৃঢ়তা প্রশংসিত হয়েছে। ফিলিস্তিনিদের রক্ত না শুকাতেই ইসরাইলে দূতাবাস খুলল আমিরাত ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ গোষ্ঠী হামাসের সঙ্গে ইসরাইলি বাহিনীর যুদ্ধবিরতির মাত্র ১০ দিনের মাথায় তেল আবিবে দূতাবাস খুলল সংযুক্ত আরব আমিরাত। রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে দূতাবাস চালু করেছে দেশটি। খবর এএফপির।

ফেব্রুয়ারিতে ইসরাইলে নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রথম রাষ্ট্রদূত হিসাবে শপথ নেন মোহাম্মদ মাহমুদ আল-খাজা। আবুধাবির কাসর আল ওয়াতান প্রাসাদে তাকে শপথবাক্য পাঠ করান আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল-মাকতুম। শপথ অনুষ্ঠানে রশিদ আল-মাকতুম রাষ্ট্রদূত খাজার

উদ্দেশে বলেন, আপনাকে আমিরাত-ইসরাইলের সম্পর্ক আরও গভীরতর করার লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। এমনভাবে কাজ হতে হবে যেন আমিরাত ও ইসরাইলের মধ্যে শান্তি, সহাবস্থান ও ধৈর্যের সংস্কৃতি আরও বিকশিত হয়। প্রসঙ্গত, গত ২৫ বছরের মধ্যে আরব বিশ্বের প্রথম দেশ হিসাবে ইসরাইলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করল আমিরাত।

সবশেষ ১৯৯৬ সালে ইসরাইলিদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পর্ক গড়েছিল জর্ডান। গত আগস্টে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণ চুক্তি সই করে সংযুক্ত আরব আমিরাত।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close