রাজশাহীতে লকডাউন বাড়লে পেছাতে পারে ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষা

রাজশাহীতে লকডাউন বাড়লে পেছাতে পারে ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষা

রাজশাহী বিভাগে লকডাউন আরও বাড়লে ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষা পেছাতে পারে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের দায়িত্বশীল একটি সূত্র। মঙ্গলবার (১ জুন) রাতে দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে এ তথ্য জানায় সূত্রটি। এ বিষয়ে আলোচনা করে দু-একদিনের মধ্যে সভায় বসতে পারে কর্তৃপক্ষ। তবে এখন পর্যন্ত ১১ জুনই নির্ধারিত আছে পরীক্ষার তারিখ।

সূত্রটি জানায়, আগামী ১১ জুন ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষার নেওয়ার সিদ্ধান্ত এখনো অপরিবর্তিত আছে। ৬ জুন পর্যন্ত লকডাউন থাকলে কোনো সমস্যা হবে না বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। তবে এরপর আবার রাজশাহী বা চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্ত এলাকায় যদি লাকডাউন আরও বাড়ানো হয়, তাহলে বিকল্প চিন্তা করবেন বলে জানিয়েছেন তারা।

এ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা) ও মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক ডা. এ কে এম আহসান হাবীব দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ‘রাজশাহী বা চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্ত এলাকায় যদি লাকডাউন আরও বাড়ানো হয় তখন তো মুশকিলে পড়ব। তখন তো অন্য চিন্তা করতে হবে। রাজশাহীতে একটি কেন্দ্র রয়েছে।’

অধ্যাপক ডা. এ কে এম আহসান হাবীব বলেন, ‘লকডাউনের মধ্যে তো পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হবে না। তবে এখন পর্যন্ত আমরা ১১ জুনের প্রস্তুতি নিয়ে রাখছি। রাজশাহীতে যদি লকডাউন দেয় তাহলে মিটিং করতে হবে। তবে আগে থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়াটাই মনে হয় ভালো হবে। দু-একদিনের মধ্যেও এ নিয়ে আমরা সভা করতে পারি।’

জানা গেছে, রাজশাহী অঞ্চলে করোনা সংক্রমণ ক্রমেই বাড়ছে। মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ১১ জন মারা গেছেন। গত সোমবার রাত ৩টা থেকে মঙ্গলবার বেলা ১১টা পর্যন্ত তাদের মৃত্যু হয়। এর আগে ২৪ ঘণ্টায় ১২ জনের মৃত্যু হয়।আগামী ১১ জুন ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে সরকারি-বেসরকারি ডেন্টাল কলেজের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এবার ভর্তি পরীক্ষায় সরকারি ডেন্টাল কলেজে আসনপ্রতি ৯৭ জন শিক্ষার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। দেশের সবগুলো সরকারি ডেন্টাল কলেজে আসন রয়েছে ৫৪৫টি। এর বিপরীতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদন করেছেন ৫৩ হাজার ৪ জন।

ফলে প্রতিটি আসনের বিপরীতে ৯৭.২৫ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবেন।সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এবার সরকারি ডেন্টাল কলেজের আসন সংখ্যা ৫৪৫টির মধ্যে ৫৩০টি সাধারণ সিট। আর ১৫টি বিভিন্ন কোটার জন্য বরাদ্দ। ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদন করেছেন ৫৩ হাজার ৪ জন।

এবার ঢাকা ডেন্টাল কলেজে ১১০টি, চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজের ডেন্টাল ইউনিটে ৬০টি, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিটে ৫৯, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের ডেন্টাল ইউনিটে ৫৬ টি আসন রয়েছে৷ এছাড়া স্যার সলিমুল্লাহ, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ, সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ, বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ ও রংংপুর মেডিকেল কলেজের ডেন্টাল ইউনিটে ৫২টি করে আসন রয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close