পই পই নিয়ে ট্রল করে লাভ নেই

পই পই নিয়ে ট্রল করে লাভ নেই

পই পই নিয়া অনেক ট্রল হচ্ছে। একটা পোস্টে লিখেছিলাম, ঘৃণা বিক্রি হয় চড়া দামে, ভালোবাসার মূল্য কম। কথাটা এমনি এমনি বলিনি। কর্পোরেট দুনিয়ায় কাজ করছি ১৯ বছর ধরে। যে বয়সে মানুষ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণ্ডি ঠিক মতো পার হয়না সে বয়সে (২৩) আল্লাহর রহমতে ও মা-বাবার দোয়ায় আমি একটি বড় কোম্পানির মার্কেটিং হেড।

যে বয়সে ছেলেমেয়েরা বিসিএস চাকরির জন্য চেষ্টা করে, কোচিং করে সেই বয়সে (২৬) আমি দেশের একটা বড় গ্রুপের SBU’র C-Suite এ জায়গা করে নিই, COO হিসাবে নিয়োগ পাই।বিশ্বাস করুন, জীবনে অনেক কিছুই পরিকল্পনা করে হয়নি। পেশাগত জীবনে প্রবেশ করেছি সময়ের অনেক আগে। কিছুটা জেদ, কিছুটা সময়ের দাবিতে।কী মনে হয়

আপনাদের, ঠিক মতো দাড়ি মোচ না গজানো একটা ছেলে যখন অল্প বয়সে লিডারশিপ রোলে জায়গা করে নেয় কোনো মামা খালুর জোর ছাড়া তখন সবাই ফুল বিছিয়ে দিয়েছিল রাস্তায়? না ভাই, ওইরকম রোড অব রোজেস ছিলনা। অনেক কাটা ছিল পথে। আমি ওইসব কাটাকে পাশ কাটিয়ে, দায়িত্বকে এবাদতের মতো করে শুরু করি। এই একটা বিষয় পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। সময়ের আগে যখন সাফল্য এসেছে, মাথা বিগড়ে যায়নি। বরং ভয় কাজ করেছে। যেকোনো সময় ব্যর্থতা আসতে পারে এই ভেবে।

সেই ভয় আমার এখনো কাজ করে!বিশ্বাস করুন, শুরুতে আমাকে যারা আঘাত দিয়েছে, মানসিক কষ্ট দিয়েছে তাদের প্রতি আমি কখনো প্রতিশোধ পরায়ণ হইনি। বরং যখন আমি সাফল্যে ভেসেছি, তাদেরকে ভালোবাসা দিয়েছি। আগলে রেখেছি। আমি সবসময় জানতাম, সাফল্য একটা ক্ষণস্থায়ী বিষয়। আবার এটা একটা ধ্রুবকও!

যদি মাথা নিচু রাখা যায়, সহকর্মীদের পাশে থাকা যায় তবে এই সাফল্য দীর্ঘ হতে পারে। আমি তাই নিজের কাছে দায়বদ্ধ থেকেছি সবসময়। অফিসকে একটা পরিবার বানাতে চেয়েছি সবসময়।আজকাল যে ইমোশনাল ইন্ট্রিলিজেন্সের এতো জয়জয়কার, আমি এই দর্শনের এক ছাত্র, সেই শুরু থেকে। সঙ্গে আমি স্পিরিচুয়াল ইন্টেলিজেন্স এরও একজন নিবেদিত স্টুডেন্ট।আ

মি আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলতে চাই, সবার জীবনের পথে কমবেশি কাটা বিছানো থাকেই। আমার পরামর্শ হলো, নিজ হাতে কাটাগুলো পথ থেকে তুলে নেবেন। পারলে একটা স্বচ্ছ কাঁচের বোতলে সামলে রাখবেন। যারা কাটা বিছিয়েছে তাদের প্রতি ক্ষীপ্র হবেননা, পারলে সহায়তা করবেন। একদিন দেখবেন আপনার পথে আর কাটা নেই। আপনি অনেক বড় হয়ে গেছেন।

তখন আপনার অন্য জুনিয়র সহকর্মীদের পথের দিকে চোখ রাখবেন। দেখবেন ওখানেও কেউ কেউ কাটা বিছিয়ে রেখেছে। ওই যে বোতলে নিজ হাতে কাটা তুলে ভরে রেখেছিলেন, সেসময় ওই কাটা গুলোর দিকে তাকাবেন। আমি নিশ্চিত, আপনি নিজ হাতে আপনার জুনিয়র সহকর্মীদের পথও কাটামুক্ত করবেন তখন।

কারণ আপনি জেনে যাবেন ততদিনে যারা কাটা বিছিয়ে রাখে তারা কখনো বড় হতে পারেনা। বরং তাঁরাই বড় হয়, যারা কাটা বিছানো পথ মাড়িয়ে অন্যের ক্ষতি না করে সামনে এগিয়ে যায়, এবং নিজে যখন বড় হয় তখন নিশ্চিত করে যেন অন্যের পথে কোনো কাটা না থাকে।পই পই নিয়ে, মানুষকে নিয়ে ট্রল করে কোনো লাভ নেই। আমি যে ফিলোসফি লালন করি সেখানে ঘৃণার চেয়ে ভালোবাসা বড়। প্রতিশোধের চেয়ে ক্ষমা বড়।লেখক- সিইও, র‍্যাংকস এফসি প্রপার্টিজ লিমিটেড

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close