এই লক্ষনগুলো দেখেই বুঝবেন আপনার শরীরে মারাত্মক প্রোটিনের ঘাটতি দেখা দিয়েছে

নিজেকে সুস্থ রাখতে ও শারীরিক কার্যকলাপ ভালোভাবে বহাল রাখতে চাইতে প্রয়োজনীয় সকল পুষ্টি উপাদান সঠিক মাত্রায় গ্রহণ করা আবশ্যক। প্রোটিন আমাদের শরীরে প্রয়োজনীয় শক্তি উৎপাদন করে, শরীরকে সুস্থ রাখতে এবং ক্ষুধাভাবকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রয়োজনীয়। ভীষণ প্রয়োজনীয় এই পুষ্টি উপাদানটির ঘাটতি থেকে বেশ কিছু শারীরিক উপসর্গ দেখা দেয়। যা থেকে সহজেই বোঝা যায় শরীরে প্রোটিনের কমতি দেখা দিয়েছে।

জানুন এমন কিছু উপসর্গ সম্পর্কে। ত্বক, চুল ও নখের সমস্যা শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি ত্বক, চুল ও নখের উপর তার প্রভাবের প্রকাশ ঘটায়। কিছু ক্ষেত্রে ত্বকে লালচে ভাব দেখা দেয়, নখ অতিরিক্ত ভঙ্গুর হয়ে যায় এবং চুল পাতলা ও ফ্যাকাশে হয়ে ওঠে। এই লক্ষণগুলো প্রোটিনের ঘাটতি থেকেই হয়।

পেশী দুর্বল হয়ে যায় আমাদের শরীরে পেশী অধিকাংশই গঠিত হয় প্রোটিনের সাহায্যে। ফলে শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি থেকে পেশী দুর্বল হয়ে যাওয়া ও পেশী কমে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে প্রোটিন ঘাটতির প্রথম লক্ষণ হিসেবে এই সমস্যাটি দেখা দেয়। হাড়ের সমস্যা দেখা দেয় প্রোটিনের ঘাটতি থেকে শুধু পেশী নয়, হাড়ও বিপদের মুখে থাকে। কারণ প্রোটিনও হাড়ের দৃঢ়তা ও ঘনত্বকে ঠিক রাখতে কাজ করে। পর্যাপ্ত ও প্রয়োজনীয় মাত্রায় প্রোটিন গ্রহণ করা না হলে হাড়ের সমস্যার প্রাদুর্ভাবও দেখা দিতে পারে।

ঘনঘন ক্ষুধাভাব দেখা দেওয়া লম্বা সময়ের জন্য অপর্যাপ্ত পরিমাণ প্রোটিন গ্রহণের ফলে ঘনঘন ক্ষুধাভাব দেখা দেয়। ফলে বারবার খাওয়া হয় এবং এতে অস্বাস্থ্যকর খাবারের প্রতি ঝোঁক দেখা দেয়। যার ফলস্বরূপ ক্যালোরি গ্রহণে মাত্রা বেড়ে যায় অনেক বেশি।

ইনফেকশনের ঝুঁকি বেড়ে যায় প্রোটিনের ঘাটতি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উপরেও নেতিবাচক প্রভাব বিস্তার করে। এতে করে অনেক সময় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা প্রয়োজনের চাইতে কমে যায় এবং ইনফেকশজনিত সমস্যা ভালো হতে বেশি সময়ের প্রয়োজন হয়।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button
Close
Close