ব্যাংকে চাকরির প্রস্তুতির সেরা সাজেশন-কৃষ্ণ ঘোষ, সিনিয়র অফিসার (জনতা ব্যাংক লিমিটেড)

ব্যাংকে চাকরির প্রস্তুতির সেরা সাজেশন-কৃষ্ণ ঘোষ, সিনিয়র অফিসার (জনতা ব্যাংক লিমিটেড)

প্রথমে এক সেট বিগত বছরের প্রশ্ন সম্বলিত বই কিনে নিবেন। শুরু থেকে শেষ করবেন। একটা সরকারি ব্যাংক জবের জন্য, আর একটা বেসরকারি ব্যাংক জবের জন্য। এই গুলা পড়ার পর আপনার কোথায় ঘাটতি আছে তা আপনি বুঝতে পারবেন। তারপর সেই অনুযায়ী ওই টাইপের আলাদা বই কিনে পড়ে ফেলবেন। যেমন- গণিতে দুর্বল হলে আলাদা একটা ম্যাথ বই নিবেন এবং সেটা চ্যাপ্টার অনুযায়ী শেষ করবেন।

@@@@ প্রিলির জন্য কি কি বই কিনবেন:১. Govt. Bank job guide (Professors)২. Private bank job guide (Professors)৩. Arifur’s vocabulary৪. Khairul’s basic math৫. MP3 বাংলা ৬. MP3 সাধারণ জ্ঞান৭. MP3 Computer৮. Masters English৯. কারেন্ট এফেয়ার্সপ্রথমে বলে রাখি ব্যাংকের এক্সাম বিভিন্ন University এর বিভিন্ন ডিপার্টমেন্ট নেয়।

যেমন ঢাকা University’র Arts faculty, Social Science faculty, Business faculty, Management faculty, IBA and BIBM ও AUST।এইবার আসল কথায় আসি। প্রথমে কোন ব্যাংকের এক্সাম কোন ডিপার্টমেন্ট নিবে সেটা জানতে হবে। বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপ ঘাটলে এই ব্যাপারে জানতে পারবেন। সেই ডিপার্টমেন্ট এর পূর্বের পরীক্ষার সব প্রশ্ন মুখস্ত করে ফেলবেন, মানে প্র্যাক্টিস করবেন। তারপর আপনি বুঝতে পারবেন কোন কোন বিষয়গুলো থেকে প্রশ্ন করা হয়।

তারপর সেই অনুযায়ী বই থেকে ওই অধ্যায় ভিত্তিক ভালোভাবে পড়ে নিবেন।যেগুলো একদম বুঝেন না তা বাদ দিবেন। সব প্রশ্ন সিরিয়াসলি নিবেন না। প্রিলি পাশ করতে আপনাকে সব প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে না। এতো এতো Website ঘেঁটে কোনো লাভ নেই। সব Website ঘেঁটে নিজের মাথাকে জটিল করবেন না।

চোখ কান খোলা রাখুন আর নিজের উপর বিশ্বাস রাখুন।যতবেশি পূর্বের প্রশ্ন Solve করবেন ততবেশি নিজের দুর্বলতা বুঝতে পারবেন। পূর্বের প্রশ্নগুলো বিভিন্ন Website থেকে ওনারা করে থাকে। ওখানেই ওয়েবসাইটের প্রশ্ন পেয়ে যাবেন আর যা পাবেন না বলে মনে হয় তা বাদ দিন। সব প্রশ্ন পারতে হয় না প্রিলির জন্য।প্রশ্ন সলভ করার সময় কয়েকটা খাতা বানাবেন। যেইগুলো একটু কঠিন মনে হয় কিন্তু বারবার আসে তা আপনি নোট করে রাখবেন।১

. বাংলা খাতা২. ইংরেজি খাতা৩. General Knowledge খাতা৪. কম্পিউটার খাতাকঠিন বিষয়গুলো নোট করবেন এখানে। এক্সামের পূর্বে দেখে যাবেন। অবশ্যই করবেন। অনেক কাজে দিবেগ্যাপ দিয়ে পড়াশুনা করবেন না। কোমর বেঁধে পড়তে বসবেন। একটা ইয়ার Target করেন। নিজের যথাসাধ্য শ্রমটুকু দেন। মনে রাখবেন সবকিছু বৃথা যায় শ্রম যায় না।

শ্রম আপনার প্রাপ্য আপনাকে এনে দিবে হোক তা আগে বা পরে। ছোট বড়ো সবার থেকে জানার চেষ্টা করবেন। আমি কিন্তু আমার অনেক জুনিয়রদের নিকট থেকে অনেক কিছু শিখেছি। শিক্ষার জন্য ছোট বড়ো হয় না। Happy Journey।@ কৃষ্ণ ঘোষ,সিনিয়র অফিসার (জনতা ব্যাংক লিমিটেড)।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close
Close