Home / Lifestyle / এই নিয়মে বোতলের মধ্যে কাঁচা মরিচ গাছ লাগালে ফলন হবে সারা বছর!

এই নিয়মে বোতলের মধ্যে কাঁচা মরিচ গাছ লাগালে ফলন হবে সারা বছর!

আমরা অনেকেই বাড়ির আঙিনায় বিভিন্ন ধরনের সবজি চাষ করতে ভালোবাসি। এই চাষ গুলো বাণিজ্যিকভাবে না করলেও এগুলো দ্বারা পরিবারিক চাহিদা মেটানো সম্ভব। তবে অনেকের চাষ বাস করার ইচ্ছা থাকলেও জায়গার অভাবে তা করা হয় না। বিশেষ করে যারা শহরে বসবাস করে জমির অভাবে তাদের চাষ করা হয় না। কেননা শহরে চাষবাসের জমি পাওয়াটাই মুশকিলের ব্যাপার। তবে গ্রামীণ জীবনে এধরনের চাষবাস সচরাচর করা হয়। কেননা গ্রামে চাষের জমি সচরাচর থাকার কারণে আমরা প্রায় প্রত্যেকেই সেখানে চাষবাসের সুযোগ পাওয়া যায়। তবে বর্তমানে কিছু কিছু পদ্ধতি আবিষ্কার হয়েছে যার মাধ্যমে আপনারা আপনাদের ঘরের বারান্দা বা বেলকুনিতে বিভিন্ন ফলমূল, ফুল এবং সবজির চাষ করতে পারেন। বর্তমানে শহরের বড় বড় বিল্ডিং এর ছাদ ও ব্যালকনিতে দেখা যায় ছাদ বাগান এবং বেলকনি বাগান।যেগুলোতে নিত্যপ্রয়োজনীয় শাক সবজি চাষ করা হয়। যেমন: মরিচ, ধনিয়া পাতা, পুদিনা পাতা ইত্যাদি। তবে জায়গার পরিমাণ বেশি হলে প্রায় সকল ধরনের সবজি এখানে চাষ করা সম্ভব। তা থেকে বাণিজ্যিক ভাবে স্বাবলম্বী না হলেও পারিবারিক চাহিদা মেটানো সম্ভব। এগুলোতে নিজের পছন্দ অনুযায়ী ফুল, ফল এবং সবজি যৌথভাবে চাষ করা যায়। তবে এই পদ্ধতিতে চাষ করতে হলে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করতে হবে। কেননা চাষ করতে হলে অবশ্যই মাটির প্রয়োজন। এই ছাদ এবং বেলকনি বাগান গুলোতে খুব কম মাটি ব্যবহার করে কিভাবে চাষ করা সম্ভব এই কৌশল অবলম্বন করতে হবে।কেননা এগুলোতে অধিক মাটি রাখার ব্যবস্থা কম থাকে। এমন ভাবে স্থাপন করতে হয় যেন সুন্দর ভাবে পানি সেচের ব্যবস্থা থাকে। আজকের এই ভিডিওতে দেখানো হয়েছে কিভাবে বোতলের মধ্যে মরিচের চারা লাগিয়ে সারাবছর মরিচের চাহিদা পূরণ করা যায়। যার জন্য প্রয়োজন শুধু একটি দুই লিটার অথবা পাচঁ লিটার ওজনের একটি খালি বোতল। প্রথমে বোতলটির তলানি কেটে ফেলে দিতে হবে। এবং বোতলটির চারদিক দিয়ে অনেকগুলো ছিদ্র করে নিতে হবে। যেন সেচের কারণে অতিরিক্ত পানি জমতে না পারে। অতিরিক্ত পানি জমলে গাছের গোড়া পচে গাছটি মারা যেতে পারে।M তাই বোতলের চারদিকে দু ইঞ্চি দূরত্ব অন্তর অন্তর সুষমভাবে ছিদ্র করে নিতে হবে।এই ছিদ্র করার আরেকটি সুবিধা হচ্ছে মাটিতে অক্সিজেনের অভাব পূরণ করা। তারপর মরিচের চারাটি বোতলটি তলানির ছিদ্র দিয়ে ছিদ্র দিয়ে ঢুকিয়ে মুখ দিয়ে বের করতে হবে। তারপর বোতলটি জৈব সার যুক্ত মাটি দিয়ে পরিপূর্ণ করতে হবে। এবং তা উপুর করে দেয়ালের সাথে বেঁধে নিতে হবে। বোতলটি এভাবে রাখলে মরিচের চারাটি প্রথমে উল্টো হয়ে থাকবে। পরে আস্তে আস্তে গাছটির মাথা ঘুরিয়ে সোজা হয়ে যাবে। এবং পরে বোতলটিতে প্রয়োজনমতো জৈব সার এবং পানি দিতে হবে। এভাবে আস্তে আস্তে গাছটি বড় হবে এবং এর মধ্যে ফুল এবং মরিচ আসতে শুরু করবে।যা দিয়ে পারিবারিক চাহিদা মেটানো সম্ভব। উক্ত পদ্ধতিতে মরিচ সহ আরো বিভিন্ন প্রকার সবজি চাষ করা সম্ভব। বর্তমানে ইউটিউবে আরো এরকম শত শত চাষ পদ্ধতির ভিডিও রয়েছে যার মাধ্যমে আপনারা বাড়ির ফাঁকা জায়গা সকল ধরনের চাষ করা সম্ভব।

About ayeen

Check Also

যেখানে সেখানে ফোন চার্জে দিয়ে ডেকে আনছেন বড় বিপদ

মোবাইল এখন প্রতিটি মানুষের নিত্যদিনের সঙ্গী। এক মুহূর্ত এখন নিজেকে ফোন ছাড়া চিন্তা করা কঠিন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.